Home / মিডিয়া নিউজ / দীর্ঘ তিন বছর পর যে কারনে নিউইয়র্ক থেকে দেশে ফিরেছেন রোমানা

দীর্ঘ তিন বছর পর যে কারনে নিউইয়র্ক থেকে দেশে ফিরেছেন রোমানা

টিভিতে নিয়মিত মুখ ছিলেন রোমানা। বিজ্ঞাপন থেকে নাটক-টেলিফিল্ম; সবখানেই ছিলো তার সরব

পদচারণা। কাজ করেছেন চলচ্চিত্রেও। রিয়াজ ও শাকিব খানের বিপরীতে ব্যবসা সফল ছবিতে দেখা মিলেছে তার।

সবকিছুই ঠিক চলছিলো। ২০১৫ সাল থেকে হুট করেই নিরব হয়ে গেলেন মিষ্টি হাসির এই অভিনেত্রী।

নিজেকে সরিয়ে নিলেন শোবিজ থেকে। সর্বশেষ ২০১৪ সালে রহমতুল্লাহ তুহিনের পরিচালনায় ’যতো দূরে যাবে বন্ধু’ নাটকে অভিনয় করেন তিনি।

জানা গেল, তিনি পাড়ি জমিয়েছেন সুদূর আমেরিকায়। কিছুদিন পর পাওয়া গেল রোমানার বিয়ের খবর। ২০১৫ সালের ৮ আগস্ট নিউইয়র্কে বিয়ে করেন তিনি। রোমানার স্বামী ঢাকার ছেলে মার্কিন নাগরিক ও নামকরা ব্যবসায়ী এলিন রহমান। তারপর সেখানেই গড়েছেন সুখের সংসার। ভক্ত-অনুরাগীদের হতাশ করে আনুষ্ঠানিকভাবে ফেসবুকে ঘোষণা দিয়েছিলেন আর অভিনয়ে ফিরবেন না।

এদিকে দীর্ঘ তিন বছর পর দেশে ফিরেছেন রোমানা। আগস্টের শুরুতেই তিনি দেশে এসেছেন। প্রিয় মাতৃভূমি, প্রিয় মানুষদের সঙ্গে সময় কাটাচ্ছেন। ঘুরছেন, হৈ চৈ করছেন। তাকে দেখা গেছে তারকাদের সঙ্গে অনেক আড্ডাতেও। তার দেশে ফেরার পর আলোচনায় তিনি। অনেকেই কৌতুহলী তার অভিনয়ে ফেরা প্রসঙ্গে।

তবে রোমানা অভিনয়ের প্রতি আগ্রহী নন। তার ঘনিষ্ঠ সূত্রে জানা গেছে, দেশ ও দেশের মানুষের ভালোবাসার টানেই অনেক ব্যস্ততার মাঝেও সময় দেশে এসেছেন রোমানা। সবার সঙ্গে মজা করে সময় কাটছে তার। তবে বাবা মোস্তাক আহমেদ খান আর মা সামিউন্নাহারের সঙ্গেই কাটছে বেশিরভাগ সময়।

রোমানার অভিনয় প্রসঙ্গে সূত্র জানায়, দেশে ফেরার পর অনেকেই অভিনয়ের প্রস্তাব দিয়েছেন। কিন্তু রোমানা অভিনয় নিয়ে এখনই কিছু ভাবছেন না। দেশে বেড়াতে এসেছেন, সেই সময়টাকে উপভোগ্য করে তুলতে চান। যেহেতু শিগগিরই চলে যাবেন তাই সবার সঙ্গে আনন্দে সময়টা কাটাতে চান। ভক্তদের কাছে দোয়া চেয়েছেন রোমানা।

প্রসঙ্গত, নব্বই দশকে শিশুশিল্পী হিসেবে অভিনয় শুরু করেন রোমানা। এরপর মডেলিং, নাটক ও চলচ্চিত্রে অভিনয় করে দর্শকের প্রশংসা কুড়িয়েছেন। শুধু তাই নয়, নির্মাতা জাকির হোসেন রাজু পরিচালিত ’ভালোবাসলেই ঘর বাঁধা যায় না’ চলচ্চিত্রে অভিনয়ের জন্য প্রথম জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারও জিতেছিলেন রোমানা।

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.