Home / মিডিয়া নিউজ / ‘আমার প্রেম ছিল অন্য একজনের সঙ্গে’

‘আমার প্রেম ছিল অন্য একজনের সঙ্গে’

দেশীয় শোবিজে ঘর ভাঙার যেন হিড়িক পড়েছে। সাম্প্রতিক সময়ে হাবিব-রেহান, তাহসান-মিথিলা,

নিলয়-শখের ঘর ভাঙার ধারাবাহিকতায় এবার ঘর ভাঙলো ছোট পর্দার জনপ্রিয় মুখ অর্চিতা স্পর্শিয়ার।

দু’বছর আগে পরিচালক রাফসান আহসানকে বিয়ে করেছিলেন এ পর্দাকন্যা। সম্প্রতি ভেঙে গেছে দু’জনের সংসার। সংসার ভাঙার খুঁটিনাটি বিষয় নিয়ে কথা বলেছেন স্পর্শিয়া।
স্পর্শিয়া বলেন, আমরা বিয়ে করেছিলাম ২০১৫ সালের অক্টোবরে। বিয়ের পর মাত্র এক বছর একসঙ্গে থেকেছি। এরপরই আলাদা হয়ে যাই। দীর্ঘদিন আলাদা থাকার পরই গতমাসে আমাদের মধ্যে ডিভোর্স হয়। আমরা দু’জনই চাইছিলাম এ খবর প্রকাশ না হোক। তাই ঘনিষ্ঠ কয়েকজন ছাড়া কাউকে জানাইনি।

তিনি আরও বলেন, কোন মেয়েই চায় না তার সংসার ভেঙে যাক। আমিও না। ওর মধ্যে হাজারটা প্রব্লেম ছিল। একেবারে ঘরে বসে খাওয়া একটা ছেলে সে। আমাকে সবসময় মানসিক টর্চারের মধ্যেই রাখত। আরও অনেক বিষয়ই আছে, যা বলতে চাই না। শুধু বলব একজন মেয়ের দেয়ালে পীঠ না ঠেকলে কখনও সংসার ভাঙার পথে এগোয় না।

সম্পর্ক ভাঙার পেছনে তৃতীয় হাত প্রসঙ্গে স্পর্শিয়া বলেন, আমাদের সম্পর্ক ভাঙার কারণ তো আমি বললাম। অনেক অনলাইন গণমাধ্যমে বিষয়টি রং মাখিয়েই প্রকাশ করছে। এমন কথা রাফসান বলেছে কি না আমি জানি না। তবে সে এ ডিভোর্সের জন্য সবসময় আমার মাকেই দায়ী করেন। আমার ভালোমন্দ আমার মায়ের চেয়ে ভালো আর কে বুঝবে? তবে আমার সঙ্গে কথা না বলেই অনেকে যা খুশি নিউজে লিখে দিচ্ছেন। সাংবাদিক ভাইদের প্রতি আমার আহ্বান থাকবে বিষয়টি ইস্যু বানিয়ে রং মাখিয়ে যেন সংবাদ পরিবেশন না করা হয়।

বিয়ে প্রসঙ্গে তিনি বলেন, রাফসান আর আমার ব্যাপারে একটা ভুল তথ্য সবাই নিউজে লিখছেন। বিয়ের নিউজেও এ তথ্য লিখেছিলেন। কিন্তু আমরা তো প্রেম করে বিয়ে করিনি। বিয়ের আগে রাফসানের সঙ্গে আমার পরিচয় ছিল কিন্তু প্রেম ছিল না। আমার প্রেম ছিল অন্য একজনের সঙ্গে। তার সঙ্গে ব্রেকআপ হয়। এতে বেশ ভেঙে পড়ি। এরপরই বিয়ে করে সেটেল্ড হওয়ার চেষ্টা করি। রাফসানদের বাসা থেকে প্রস্তাব আসে। রাজি হয়ে যাই। আমাদের বিয়েটা প্রেমের নয়, পারিবারিকভাবেই হয়েছিল।

Check Also

ভালো নেই পূর্ণিমা

ঢাকাই সিনেমার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা ভালো নেই। হঠাৎ করে কয়েকদিন ধরে ঠাণ্ডাজ্বর ও গলা ব্যথায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.