Home / মিডিয়া নিউজ / অভিজ্ঞতা ভয়াবহ, এমন কাজ আমি কখনোই করিনি : সুজানা

অভিজ্ঞতা ভয়াবহ, এমন কাজ আমি কখনোই করিনি : সুজানা

মিডিয়ার আলোচিত মুখ সুমাইয়া জাফর সুজানা। দীর্ঘ সময়জুড়ে শোবিজ অঙ্গনের সঙ্গে নিজেকে

জড়িয়ে রেখেছেন। কখনো নাটকে, কখনো বিজ্ঞাপনে আবার কখনোবা মিউজিক ভিডিওর মডেল

হয়ে দর্শক আলোচনায় থাকছেন। সাম্প্রতিক সময়ে কিছু মিউজিক ভিডিওর জন্য বেশি

আলোচিত হয়েছেন তিনি। সংগীত তারকা তাহসানের গান ‘কেউ না জানুক’র মডেল হয়ে এরই মধ্যে ব্যাপক প্রশংসা কুড়িয়েছেন সুজানা।

শুধু তাই নয়, স্বল্প সময়ে ১০লাখ দর্শক মিউজিক ভিডিওটি ইউটিউবে দেখেছেন বলে জানান তিনি। এ প্রসঙ্গে সুজানা বলেন, মিউজিক ভিডিওটি যখন থেকে নির্মাণ শুরু হয়েছে তখনই বুঝতে পেরেছিলাম দর্শক খুব ভালোভাবে নেবেন। সে সঙ্গে অনেক ভিউ হবে এটাও আশা করেছি। আমার আশা পূর্ণ হয়েছে। আরিয়ানকে ধন্যবাদ এত সুন্দর একটি ভিডিও নির্মাণ করার জন্য। তার কাজ বরাবরই ভালো হয়। সেটা দর্শকও ভালো জানেন। সত্যি, এমন মিউজিক ভিডিওর কাজ পেলে আবারো করবো। সম্প্রতি আরো কিছু ভিডিওতে কাজ করার প্রস্তাব পেয়েছেন সুজানা। কিন্তু মনের মতো না হওয়ায় কোনোটিতে সাড়া দেননি।

সুজানা বলেন, প্রতিদিন কম করে হলেও ৫টা প্রস্তাব আসে। আমি করি না। বিনয়ের সঙ্গে ফিরিয়ে দিই। আমার কথা হলো, মনের মতো ভালো কাজ না হলে কেন করবো। গত বছর থেকে যে কটি মিউজিক ভিডিওতে কাজ করেছি প্রতিটিই দর্শক সাড়া পেয়েছে। ঠিক এই রকম কাজগুলো হলে করতে পারি। তবে সেটা সংখ্যায় কম। বছরে আমি একটিতে অভিনয় করবো। তবুও যেন মানসম্মত হয়। গনহারে কাজ করলে মান থাকে না। আমি আমার ক্যারিয়ারের শুরু থেকে কোয়ালিটিকে প্রাধান্য দিয়ে এসেছি। এটা সবসময় ধরে রাখতে চাই।

মিউজিক ভিডিওর পাশাপাশি সম্প্রতি একটি নাটকেও অভিনয় করেছেন সুজানা। নিয়াজ কামরান আবিরের রচনা ও পরিচালনায় এর নাম ‘গুম’। মূলত ‘অ্যাকশন আওয়ার’ নামের একটি সিরিজের গল্প এটি। বিশেষত নারী পাচারকারী ও জীবনের সঙ্গে লড়াই করা একটি মেয়ের গল্প তুলে ধরা হয়েছে এ নাটকে। এতে সুজানার বিপরীতে আছেন অপূর্ব।

এ নাটকে অভিনয়ের অভিজ্ঞতার কথা বলতে গিয়ে সুজানা বলেন, অভিজ্ঞতা ভয়াবহ। এ ধরনের কাজ আমি কখনোই করিনি। শুটিংয়ে এতই কষ্ট হয়েছে যে, আমি অসুস্থ হয়ে পড়েছি। গত পাঁচটা দিন আমি বিছানা থেকে উঠতে পারিনি। খুবই ঠান্ডা লেগে গেছে। নাটকের গল্পটি বেশ দারুণ। অনেক ভয়ানক ও ঝুঁকিপূর্ণ শুটিং করতে হয়েছে আমাদের। এই প্রথম নিজেকে ভেঙে অন্যভাবে উপস্থাপন করেছি। ক্যামেরার সামনে গ্রামের একটি সহজ সরল মেয়ের চরিত্রে দাঁড়িয়েছি। সত্যিই এটার আমার জন্য বড় একটি চ্যালেঞ্জ ছিল। তবে এটা বলতে পারি, নাটকের কাজটি বেশ ভালো হয়েছে।

তিনি বলেন, আশা করছি দর্শকও দেখে উপভোগ করবেন। বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে দর্শক সুজানাকে চেনেন। আর সে জায়গাটিতে এখন খুব কমই দেখা যায় তাকে। তার কারণ মানসম্মত কাজের অভাব। ভালো কাজ না পেলে তিনি কখনোই করতে রাজী হন না। তাই বিজ্ঞাপনে কাজ করার সময় অন্তত এ সচেতনতাটুকু অবলম্বন করেন সুজানা। এ প্রসঙ্গে তিনি বলেন, এখন সে রকম মানসম্মত বিজ্ঞাপনের কাজ হয় না। তাই আমিও হরহামেশা রাজি হই না। যতক্ষণ না দেখি একটি ভালো কাজের অফার পাচ্ছি।

অভিনয়ের পাশাপাশি অনেকদিন ধরে একটি সেচ্ছাসেবী প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে জড়িত সুজানা। সেখানে প্রতিবন্ধী মানুষদের জন্য নিয়মিত কাজ করছেন। প্রতিটি মানুষের একটা স্বপ্ন থাকে। আর সেটা বাস্তবায়ন করার জন্য প্রতিনিয়ত চেষ্টায় থাকেন তিনি। সুজানার ইচ্ছা রয়েছে একটি বৃদ্ধাশ্রম চালু করার। এটা তার জীবনের একটা বড় স্বপ্ন বলেই জানান তিনি।

এ প্রসঙ্গে সুজানা বলেন, আমার বাবাও চাইতেন একটি বৃদ্ধাশ্রম চালু করার। তার সে স্বপ্ন এখন আমার। আমি সেটা পূরণ করতে চাই। কারণ বাবার মতো আমারও গরীব-দুঃখী ও অসহায় মানুষদের পাশে দাঁড়াতে খুব ভালো লাগে। আমরা দেখি, অনেক ছেলে সন্তান বিয়ে করে তাদের বাবা মাকে অযত্ন অবহেলায় রাখে। যা মোটেও ঠিক নয়। আমি চাই না, কোনো বাবা-মা বৃদ্ধ বয়সে এসে অসহায়ত্বের মধ্যে দিন কাটাক। এমজমিন

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.