Home / মিডিয়া নিউজ / ফেরদৌস চালাকি করার চেষ্টা করে, আবার ধরাও খায় : মৌসুমী

ফেরদৌস চালাকি করার চেষ্টা করে, আবার ধরাও খায় : মৌসুমী

ফেরদৌস যেমন চালাকি যেমন করেন, তেমন ধরাও খান, এমনটাই বলেছেন ঢাকাই সিনেমার

জনপ্রিয় অভিনেত্রী মৌসুমী। সম্প্রতি ঢাকার একটি অভিজাত হোটেলে মুখোমুখি হয়েছিলেন

জনপ্রিয় এই দুই অভিনয়শিল্পী। সেখানেই এ কথা বলেছিলেন মৌসুমী। তবে এসময় চুপ করে ছিলেন ফেরদৌস।

ফেরদৌসের প্রশংসা করে মৌসুমী বলেছেন, ‘ফেরদৌসকে প্রথম দিন যেমন দেখেছিলাম,

এখনো তেমনই আছে। কোনো ধরনের পরিবর্তন তার হয়নি। সে ব্যক্তিগত আর পেশাজীবন এক করে ফেলে না। পরিবার, আত্মীয়স্বজন, বন্ধুবান্ধবের প্রতি ওর যতটা আন্তরিকতা দেখেছি, তার অন্য কোনো বন্ধুবান্ধবের মধ্যে আমি সেভাবে দেখিনি। আমি খুব গভীরভাবে তাকে পর্যবেক্ষণ করি।’

ফেরদৌসকে নির্মোহ ও নির্লোভ উল্লেখ করে মৌসুমী বলেন, ‘টাকাপয়সার প্রতি তার মোহ আমার চোখে পড়েনি। ভালো কাজের প্রতি তার আগ্রহটা বেশি। যখন কারও সঙ্গে কোনো কমিটমেন্ট করে, সেটা সে অবশ্যই পালন করে।’

ফেরদৌসের ইতিবাচক দিকের পাশাপাশি দু-একটা নেতিবাচক দিকের কথাও বললেন মৌসুমী। ‘ওর সবচেয়ে বড় দোষ হচ্ছে, মাঝেমধ্যে একটু চালাকি করার চেষ্টা করে, (হাসি) আবার ধরাও খায়। এক অর্থে এটা আবার বড় কোনো দোষও না।’

অবশ্য মৌসুমী বলেছেন, ‘একটা মানুষ মিথ্যা না বলা পর্যন্ত আমি ওটাকে দোষ ধরি না। মিথ্যাচার বলতে আমি যেটা বুঝি, তা হচ্ছে কাউকে সাত-পাঁচ বোঝানো। ইনিয়ে-বিনিয়ে কথা বলা। মিথ্যা জিনিসকে প্রতিষ্ঠিত করানো। ওই জিনিসটা অবশ্য ওর মধ্যে নেই।’

চালাকি করার পর ধরা পড়লে কী করেন? ফেরদৌসকে এ প্রশ্ন করলে তাঁর উত্তর, ‘ধরা খাইলে, মুগুর সব ঘাড়ে পড়ে।’ সূত্র : প্রথম আলো

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.