Home / মিডিয়া নিউজ / বলিউডের যেসব নায়িকারা তাদের স্বামীর দ্বিতীয় স্ত্রী

বলিউডের যেসব নায়িকারা তাদের স্বামীর দ্বিতীয় স্ত্রী

বলিউডে অভিনেত্রীর অভাব নেই। বলিউডের সকল নায়িকারা তাদের রুপ দিয়ে দর্শকদের মন জয়

করে নিয়েছে। এই সকল নায়িকাদের পছন্দ করতো অংখ্যা অবিবাহিত পুরুষ। তবে সব থেকে অবাক

করার বিষয় হচ্ছে এই সকল নায়িকা মন দিয়েছে বিবাহিত পুরুষকে। একই সাথে তারা বিয়ে করেছে

বিবাহিত পুরুষকে। এই সকল নায়িকারা প্রথম বিয়ে করলেও তারা যাদেরকে বিয়ে করেছে তাদের দ্বিতীয় স্ত্রী। বলিউডের এমন কয়েকজন অভিনেত্রীকে নিয়ে এবারের আলোচনা।

কারিনা কাপুর ও সাইফ আলি খান

বর্তমান সময়ে বলিউডের আলোচিত তারকা দম্পতি সাইফ আলি খান ও কারিনা কাপুর। তাদের প্রেমের শুরু ২০০৭ সালে ’তাসান’ ছবিতে অভিনয়ের সময় থেকে। পাঁচ বছর প্রেম করার পর ২০১২ সালের ১৬ অক্টোবর তারা বিয়ে করেন। সাইফ-কারিনার একমাত্র ছেলে তৈমুর আলি খান।

সাইফের প্রথম স্ত্রী অভিনেত্রী অমৃতা সিং। ১৩ বছর সংসার করার পর ২০০৪ সালে বয়সে ১৩ বছরের বড় অমৃতার সঙ্গে বিচ্ছেদ ঘটান সাইফ। সাইফ-অমৃতারি সংসার জন্ম হয়েছিল বর্তমানের বলিউড নায়িকা সারা আলি খান ও ছেলেন ইব্রাহিম আলি খানের।

বিদ্যা বালান ও সিদ্ধার্থ রাই কাপুর

বলিউডের ’দ্য ডার্টি পিকচার’ তারকা বিদ্যা বালান ইটিভির ব্যবস্থাপনা পরিচালক সিদ্ধার্থ রায় কাপুরের সঙ্গে টানা দুই বছর প্রেম করেন। মিডিয়ায় তাদের প্রেমের বিষয়টি ওপেন সিক্রেট থাকলেও বিয়ের আগের দিন পর্যন্ত তা স্বীকার করেননি। সব জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে ২০১২ সালে ঘরোয়া আয়োজনে বিয়ে করেন বিদ্যা ও সিদ্ধার্থ। বিদ্যার স্বামীও আগে একটি বিয়ে করেছেন।

রানি মুখার্জী ও আদিত্য চোপড়া

বিভিন্ন সময়ে রানি মুখার্জীর সঙ্গে গোবিন্দ, আমির খান, অভিষেক বচ্চন ও আদিত্য চোপড়ার সঙ্গে প্রেমের গুঞ্জন ছড়িয়েছে। শেষ পর্যন্ত বলিউডের বিখ্যাত প্রযোজনা সংস্থা যশ রাজ ফিল্মস-এর চেয়ারম্যান প্রযোজক আদিত্য চোপড়ার গলায় মালা পরান রানি মুখার্জী। ২০১৪ সালে তাদের বিয়ে হয়। আদিত্যের প্রথম স্ত্রী ছিলেন পায়েল খান্না। ২০০৯ সালে তাদের ডিভোর্স হয়।

শিল্পা শেঠি ও রাজ কুন্দ্রা

নব্বইয়ের দশকে শিল্পা শেঠির সঙ্গে অক্ষয় কুমারের প্রেম ছিল সবচেয়ে বেশি আলোচিত। কিন্তু শিল্পাকে ছেড়ে ২০০১ সালে অক্ষয় বিয়ে করে ফেলেন অভিনেত্রী টুইঙ্কেল খান্নাকে। ’চোরাকে দিল মেরা’ খ্যাত অভিনেত্রী শিল্পা অবশেষে ২০০৯ সালে ব্রিটিশ ব্যবসায়ী রাজ কুন্দ্রার সঙ্গে গাঁটছড়া বাধেন। শিল্পাকে বিয়ে করার জন্য প্রথম স্ত্রী কবিতাকে তালাক দেন রাজ। শিল্পা ও রাজের সংসারে এক ছেলে রয়েছে।

লারা দত্ত ও মহেশ ভূপতি

সাবেক ’মিস ইউনিভার্স’ লারা দত্ত ২০১১ সালে ভারতের জনপ্রিয় টেনিস খেলোয়াড় মহেশ ভূপতিকে বিয়ে করেন। ২০১২ সালে মহেশ-লারার সংসারে জন্ম নেয় কন্যা সায়রা। মহেশের প্রথম স্ত্রী ছিলেন প্রখ্যাত মডেল শ্বেতা জয়শংকর। সাত বছর সংসার করার পর ২০১০ সালে তাদের বিচ্ছেদ হয়।

ধর্মেন্দ্র ও হেমা মালিনী

অবিবাহিত অবস্থায় সঞ্জয় কুমার, জিতেন্দ্রসহ অনেক নামী অভিনেতার কাছ থেকে বিয়ের প্রস্তাব পেয়েছিলেন বলিউডের ’ড্রিম গার্ল’ খ্যাত অভিনেত্রী হেমা মালিনী। সব প্রস্তাব বাতিল করে ’শোলে’ ছবির শুটিংয়ের সময় ধর্মেন্দ্রর প্রেমে পড়েন নায়িকা। ধর্মেন্দ্র তখন বিবাহিত। তার প্রথম স্ত্রী প্রকাশ কোর ডিভোর্সে রাজি ছিলেন না।

হিন্দু ধর্ম মতে, প্রথম স্ত্রী থাকা অবস্থায় দ্বিতীয় বিয়ে আইনসিদ্ধ নয়। তাই ১৯৮৯ সালে ধর্মেন্দ্র ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করে হেমা মালিনীকে বিয়ে করেন। তাদের সংসারে দুই মেয়ে এশা ও অহনা। ধর্মেন্দ্রর আগের সংসারে দুই ছেলে। সানি দেওল ও ববি দেওল।

জুহি চাওলা ও জয় মেহতা

আমি ও নব্বইয়ের দশকে বলিউড কাঁপানো ’মিস ইন্ডিয়া’ সুন্দরী জুহি চাওলা ১৯৯৫ সালে ব্যবসায়ী জয় মেহতাকে বিয়ে করেন। এ দম্পতির এক ছেলে, এক মেয়ে। আমেরিকা, কানাডা, আফ্রিকা ও ভারতজুড়ে ব্যবসা রয়েছে জয় মেহতার। তার প্রথম স্ত্রী ছিলেন সুজাতা বিরলা। তিনি ১৯৯২ সালে একটি বিমান দুর্ঘটনায় নিহত হন।

বনি কাপুর ও শ্রীদেবী

মিঠুন চক্রবর্তীর সঙ্গে শ্রীদেবীর বিতর্কিত প্রেম কাহিনির কথা এখনও কান পাতলে শোনা যায় বলিউডের অন্দরে। মিঠুন তার স্ত্রী যোগিতা বালীকে ফাঁকি দিয়ে শ্রীদেবীকে ঘরে তুলতে পারেননি। তাই ১৯৯৬ সালে প্রযোজক বনি কাপুরকে বিয়ে করেন শ্রীদেবী। তাদের দুই মেয়ে জাহ্নবী কাপুর ও খুশি কাপুর।

এর আগে মোনা শুরীকে বিয়ে করেছিলেন বনি কাপুর। ১৯৯৩ সালে তার প্রথম স্ত্রী মোনার সঙ্গে আট বছরের সংসার ভেঙে দেন বনি। সেই সংসারে জন্ম হয়েছিল অভিনেতা অর্জুন কাপুরের।

কারিশমা কাপুর ও সঞ্জয় কাপুর

নব্বইয়ের দশকে পর্দা কাঁপানো আরেক নায়িকা কারিনা কাপুরের বোন কারিশমা কাপুর। অমিতাভ বচ্চনের ছেলে অভিষেক বচ্চনের সঙ্গে আংটি বদলও হয়েছিল তার। শেষ পর্যন্ত সে সম্পর্ক ভেঙে যায়। ২০০৩ সালে কারিশমা বিয়ে করেন শিল্পপতি সঞ্জয় কাপুরকে। বিয়ের কয়েক বছর পরেই স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে দ্বন্দ্ব শুরু হয়। অবশেষে ২০১৬ সালে আনুষ্ঠানিকভাবে তারা আলাদা হয়ে যান। সঞ্জয় প্রথম বিয়ে করেছিলেন ফ্যাশন ডিজাইনার নন্দিতা মাহতানিকে।

রাবিনা ট্যান্ডন ও অনিল থাদানি

নব্বইয়ের দশকের বলিউডের অন্যতম সুন্দরী অভিনেত্রী রাবিনা ট্যান্ডন। ’স্ট্যান্ড’ ছবিতে অভিনয়ের সময় ওই ছবির প্রযোজক অনিল থাদানির প্রেমে পড়েন রাবিনা। এর আগে অক্ষয় কুমারের সঙ্গে এই নায়িকার প্রেমের সম্পর্ক ছিল। সেই প্রেমের ইতি ঘটে অনেক আগেই। ২০০৪ সালে অনিলকে বিয়ে করেন রাবিনা। রাবিনাকে বিয়ে করতে অনিল তার প্রথম স্ত্রী নাতাশা ছিপ্পিকে তালাক দেন। তাদের সংসারে আছে কন্যা রাশা ও পুত্র রণবীর।

এদিকে, বলিউডের এই সকল অভিনেত্রীরা বিয়ের পর সংসার করছে। অনেক অভিনেত্রীর বাচ্চা হয়েছে। তবে এরপরও এই সকল অভিনেত্রীদের নিয়ে আলোচনা হচ্ছে। অনেকে বলেন তারা কেন বিবাহিত পুরুষকে পছন্দ করে বিয়ে করেছে। এই বিয়ের মাধ্যমে অন্য একটি সংসার শেষ করা হলো কিনা এমন প্রশ্নও অনেকে তুলছে। তবে এরপরও তারা তাদের স্বামীর দ্বিতীয় স্ত্রী হয়ে সুখে রয়েছে।

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.