Home / মিডিয়া নিউজ / যে অপরাধ পরিচালক আমার সাথে করেছেন তা ক্ষমার অযোগ্য : পপি

যে অপরাধ পরিচালক আমার সাথে করেছেন তা ক্ষমার অযোগ্য : পপি

তিনবার জাতীয় পুরস্কার পাওয়া ঢাকাই সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাদিকা পারভীন পপি ।

তার অভিনয় নৈপূন্যে মন জয় করেছেন দর্শকদের। পপি অভিনীত কামরুজ্জামান কামু পরিচালিত ছবি

দি ডিরেক্টর মুক্তি পেয়েছে ঈদুল ফিতরে। মুলত এই ছবির পরিচালক কামরুজ্জামানের উপর ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন পপি

ঢাকাই সিনেমার অন্যতম জনপ্রিয় অভিনেত্রী সাদিকা পারভীন পপি। তিনবার জাতীয় পুরস্কার পাওয়া এই

অভিনেত্রীর দখলে আছে বেশকিছু ব্লকবাস্টার ছবি। ঈদুল ফিতরে ইউটিউবে মুক্তি পেয়েছে এই চিত্রনায়িকার অভিনীত ও কামরুজ্জামান কামু পরিচালিত ছবি ’দি ডিরেক্টর’।

যদিও এটিকে চলচ্চিত্র হিসেবে মানতে নারাজ পপি। তার দাবি, ’দি ডিরেক্টর’-এর পরিচালক এটিকে নাটক বলেই তার সাথে মৌখিক চুক্তি করেছিলেন, এমনকি তাকে নাটকের পারিশ্রমিক-ই দেয়া হয়েছে। আর এ কারণে ছবির পরিচালকের বিরুদ্ধে সম্প্রতি মামলা করারও হুমকি দিয়েছেন তিনি।

পপি বলেন, পরিচালক আমার কাছে নাটকের প্রস্তাব নিয়ে এসেছিল। তিনি আমাকে বলেছিলেন এটা একটি নাটক, দেড় থেকে দুই দিনের মধ্যে কাজ করলেই হয়ে যাবে।

ওই পরিচালকের (কামু) বিভিন্ন সাক্ষাৎকার পড়লেও দেখতে পারবেন তিনি বলেছেন, এটাকে তিনি শুরু থেকে নাটক হিসেবেই কাজ করেছেন, কিছুদূর কাজ করার পর মনে হয়েছে উনার এটিকে তিনি মুভি বানাবেন! উনার খেয়ালখুশিমতো আর্টিস্টগুলোকে কিল করার চেষ্টা করেছেন। ব্যক্তিগতভাবে আমি এমনটাই মনে করছি।

অভিযোগ করে পপি আরও বলেন, ’দি ডিরেক্টর’-এর জন্য টেলিফিল্মের রেমুনারেশন-ই দেয়া হয়েছে আমাকে। যদি এটা সিনেমা করেই থাকে তাহলে ডিরেক্টর (কামু) আমার সাথে দুটি ক্রাইম করেছে। এটিকে যদি তিনি টেলিফিল্ম বলেন, তাহলে আমি আমার প্রাপ্য পেয়েছি, দ্যাটস ফাইন।

কিন্তু তিনি যদি এটিকে সিনেমা বলেন, তাহলে প্রথমত তিনি আমার সাথে সত্য লুকিয়েছেন। একজন আর্টিস্টকে রীতিমত ঠকিয়েছেন। দ্বিতীয়ত, আমার মুভির যে রেমুনারেশন হয় সেটা আমাকে দেয়া হয়নি। যদি তিনি এটিকে সিনেমা বলেই দাবি করেন, তাহলে মুভিতে আমি যে পারিশ্রমিক নিয়ে থাকি সেই পরিমাণ অর্থ যেন তিনি আমাকে ফিরিয়ে দেন বা পৌঁছে দেন।

ক্ষোভ নিয়ে পপি বলেন, ’দি ডিরেক্টর’-এর পরিচালক যে ক্রাইম আমার সাথে করেছেন এটা ক্ষমার অযোগ্য। একটা নরমাল নাটককে মুভি হিসেবে চালানোর অপচেষ্টা করছেন। বড় পর্দার মানুষদেরকে একেবারে ইউটিউবে নিয়ে ছেড়ে দিয়েছেন, এটা অন্যায়।

উল্লেখ্য, পপি ১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবরের কুলি ছায়াছবিতে অভিনয়ের মধ্যদিয়ে চলচ্চিত্রে আবির্ভূত হন। এ পর্যন্ত তিনি মেঘের কোলে রোদ, কি যাদু করিলা, গঙ্গাযাত্রা ছায়াছবিতে অভিনয়ের করে শ্রেষ্ঠ অভিনেত্রী হিসেবে তিনবার জাতীয় চলচ্চিত্র পুস্কাররে ভূষিত হয়েছেন । এছাড়াও অনেক ব্যবসা সফল ছবি উপহার

দিয়েছেন তিনি

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.