Home / মিডিয়া নিউজ / সিরিয়ার শিশুদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস

সিরিয়ার শিশুদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করলেন অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস

টানা বিমান হামলায় আক্ষরিক অর্থেই ধ্বংসস্তুপে পরিণত হয়েছে সিরিয়ার ঘৌতা শহরটি। গুঁড়িয়ে

গেছে প্রায় সব স্থাপনা। আবাসিক ভবন থেকে শুরু করে, বাদ যায়নি স্কুল আর হাসপাতালও।

ধ্বংসস্তুপ সরালেই বেরিয়ে আসছে মরদেহ; বেশিরভাগই শিশুদের। শিশুরা বিদ্রোহীও না

সন্ত্রাসীও না। বিশ্ব দেখছে কীভাবে আসাদ অভিযানের নামে কিভাবে শিশুদের হত্যা করছে।

আলেপ্পোর পর বিদ্রোহীদের সবচেয়ে শক্ত ঘাঁটি ঘৌতা। তাদের দমনে চলা বিমান হামলায় ৭ দিনে প্রাণ গেছে ৬০০ মানুষের। এদের মধ্যে প্রায় দেড়শই শিশু। এদিকে শিশুদের হতাহতের ছবি বিশ্ব মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে পড়ে। শিশুদের আতর্তনাতের ছবি মানবতাকে জাগিয়ে তুলেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এ হামলার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছেন সবাই।

অপুএদিকে বিচ্ছেদের কষ্ট নিয়েও সিরিয়ার শিশুদের প্রতি সহানুভূতি প্রকাশ করলেন এ সময়ের সবচেয়ে আলোচিত অভিনেত্রী অপু বিশ্বাস। তিনি সিরিয়ার শিশুদের কথা স্মরণ করতে গিয়ে জয়ের সাথে একটি ছবি নিজের ভেরিফাইড ফেসবুক পেইজে পোস্ট করে লিখেছেন, ’যুদ্ধের সাথে আমরা সবাই পরিচিত। আমরা ছোট বেলা থেকে স্কুল, কলেজ, বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশুনা নিয়ে যুদ্ধ করেছি, পরে ক্যারিয়ার নিয়ে যুদ্ধে চালিয়েছি।’

’সংসার থেকে শুরু করে কম বেশি সকল ক্ষেত্রেই যুদ্ধ করেছি। যেমনটি আমিও। চলচ্চিত্র, সংসার সহ জীবনের অনেকটি সময় যুদ্ধ করতে হয়েছে আমাকে, এবং সেই যুদ্ধকে মেনেও নিয়েছি। কিন্তু সিরিয়ায় যে যুদ্ধ চলছে, তা আমি কেনো পৃথিবীর কেউ মেনে নেবেন না এবং নিচ্ছেনও না আশাকরি।’

’সিরিয়ার যুদ্ধে যেভাবে শিশুদের উপর অত্যাচার চালানো হচ্ছে এবং তাদের হত্যা করা হচ্ছে তা আমার হৃদয়কে প্রতিনিয়ত ক্ষত-বিক্ষত করে চলেছে। কারণ আমিও একজন মা। পৃথিবীর প্রতিটি শিশুই আমার কাছে সন্তানের মতো। তাই আমি কামনা করি দ্রুতই এ যুদ্ধ, শিশু হত্যা ও তাদের উপর অত্যাচার বন্ধ হোক। শিশুদের জন্য পৃথিবীর প্রতিটি স্থানই হোক নিরাপদ স্থান।’

Check Also

ভালো নেই পূর্ণিমা

ঢাকাই সিনেমার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা ভালো নেই। হঠাৎ করে কয়েকদিন ধরে ঠাণ্ডাজ্বর ও গলা ব্যথায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.