Home / মিডিয়া নিউজ / ক্ষোভে আঁচল ফিরে গেলেন গ্রামে

ক্ষোভে আঁচল ফিরে গেলেন গ্রামে

বিগত বছরে অনেকটা বেকার সময় পার করেছেন চিত্র নায়িকা আঁচল। আর নতুন বছরে এসে তিনি

অভিনয়কে বিদায় জানালেন। এছাড়া ২০১৪ সালে তিনি বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে চুক্তিবদ্ধ হলেও সেগুলোর

শুটিং শেষ হয়েছে তাকে ছাড়াই। শুধু তাই নয় বেশ কিছু চলচ্চিত্রে চুক্তি বাতিল করে আঁচলের কাছ থেকে সাইনিং মানি ফেরত নেওয়ার ঘটনাও ঘটেছে ।

আঁচলের বর্তমান অবস্থা প্রসঙ্গে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘আমি আসলে বেশ হতাশ সময় পার করছি। কারণ বিগত ছ’মাসে নতুন কোনও চলচ্চিত্রেই চুক্তিবদ্ধ হতে পারিনি। আর যে চলচ্চিত্রগুলো হাতে ছিল সেগুলোরও চুক্তি বাতিল হয়েছে। তার সাথে কিছু কিছু চলচ্চিত্রের সাইনিং মানিও ফেরত দিতে হয়েছে আমাকে।’ তিনি আরও বলেন, ‘মিডিয়ার রাজনীতির কাছে আমার ক্যারিয়ার ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে এটা দেখার চেয়ে অভিনয় ছেড়ে দেওয়াটাই এখন আমার কাছে সহজ মনে হচ্ছে। মিডিয়া রাজনীতির প্রভাবে ক্যারিয়ার নষ্ট করার চেয়ে অভিনয় ছেড়ে দেওয়াই ভাল।’

২০১১ সালে রাজু আহম্মেদ এর ‘ভুল’ এবং মাসুদ কায়নাতের ‘বেইলি রোড’ দিয়ে চলচ্চিত্রে যাত্রা হয় আঁচলের। এপর্যন্ত ডজন খানেক চলচ্চিত্রে অভিনয় করার পাশাপাশি ২০১৩ সালে ‘জটিল প্রেম’ নামের চলচ্চিত্রটি বাণিজ্যিক ভাবে ব্যাপক সফলতা পায়। অভিনয় ক্যারিয়ারের জন্যই খুলনা ছেড়ে ঢাকা বনশ্রীতে থাকতেন আঁচল। ক্যারিয়ার হতাশায় তার এখন ঢাকায় বসে বাসা ভাড়া দেওয়ার অবস্থা নেই। এমনকি ছোট ভায়ের পড়াশোনার খরচ মেটাতেও তিনি এখন ব্যর্থ। তাই মা-ভাইকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি ফিরে গেছেন বলে জানা যায়।

গত বছর ডিসেম্বরে তার অভিনীত সর্বশেষ চলচ্চিত্র ‘এপার-ওপার’ মুক্তি পেলও মিডিয়ার রাজনীতির কাছে মুখ থুবড়ে পড়ে বলে অভিযোগ করেন তিনি। তাই প্রযোজকরাও মুখ ফিরিয়ে নিয়েছেন। হাতে এখন ‘সুলতানা বিবিয়ানা’ শিরোনামের একটি অসমাপ্ত কাজ ছাড়া কিছু নেই তার। আঁচলের সাথে কথা বলে আরও জানা যায় রাজাবাবু ও মিশন আমেরিকা শিরোনামের চলচ্চিত্র দু’টিতে চুক্তিবদ্ধ হওয়ার পরও উপযুক্ত কারণ ছাড়াই তাকে বাদ দেওয়া হয় চলচ্চিত্রগুলো থেকে।

উল্লেখ্য, বদিউল আলম খোকন পরিচালিত ‘রাজাবাবু’ চলচ্চিত্রটি মুক্তি পায় গত বছর কোরবানি ঈদে। চলচ্চিত্রটিতে শাকিব খান- অপু বিশ্বাস জুটিবদ্ধ হয়ে অভিনয় করেছিলেন। অন্যদিকে আশিকুর রহমান পরিচালিত রেইনবো মিডিয়ার প্রযোজনায় ‘মিশন আমেরিকা’ নামের চলচ্চিত্রটি এখনও নির্মাণাধীন।

মূলত এই সব কারণেই আঁচল এখন প্রচণ্ড হতাশ সময় কাটাচ্ছেন। তাই শোবিজ অঙ্গনে সব অভিমান রেখে নিজের অভিনয় ক্যারিয়ারকে গুটিয়ে নেওয়ার মত কঠিন সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তিনি। আর সত্যিকার অর্থেই একজন শিল্পীর কাছে তার শিল্প ত্যাগ করার চেয়ে কঠিন কিছু হতে পারে না।

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.