Home / মিডিয়া নিউজ / রাষ্ট্রপতির নাতি সায়মন

রাষ্ট্রপতির নাতি সায়মন

এতদিন রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সম্পর্কের বিষয়টা গোপন রেখেছিলেন

চিত্রনায়ক সায়মন সাদিক। তবে এবার সম্পর্কের বিষয়টি প্রকাশ্যে আনলেন সায়মন।

‘আমি, আব্বু আর মহামান্য দাদা!’ এভাবে আজ সোমবার দুপুরে সামাজিক যো​গাযোগের মাধ্যম ফেসবুকে একটি ছবিসহ স্ট্যাটাস দিয়েছেন তিনি।

আর এ প্রসঙ্গে সায়মন বলেন, ‘রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ আমার দাদা। খুব কাছের দাদা। আমার দাদার ছোট ভাই। একই পরিবারের। কিন্তু কখনোই বলা হয়নি। আসলে আমিই বলতে চাইনি।’

গত শনিবার বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির নবনির্বাচিত কমিটির সদস্যরা ধানমন্ডির ৩২ নম্বরে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে পুষ্পস্তবক দেন। এরপর বিকালে তারা যান বঙ্গভবনে, রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদের সঙ্গে সৌজন্য সাক্ষাৎ​ করতে।

সায়মন বলেন, ‘বিকাল পাঁচটা নাগাদ আমরা সবাই বঙ্গভবনে যাই। সেখানে সবাই ঘণ্টা দেড়েক ছিলেন। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে চলচ্চিত্রসংশ্লিষ্ট নানা বিয়য় নিয়ে তখন কথা হয়েছে।’

এরপর রাষ্ট্রপতির কাছ থেকে বিদায় নিয়ে সবাই চলে আসেন, কিন্তু সেখানে থেকে যান সায়মন আর তার বাবা সাদেকুর রহমান। সায়মন জানান, তার বাবা কিশোরগঞ্জে ব্যবসা করেন। পাশাপাশি সেখানে রাজনীতির সঙ্গেও জড়িত আছেন।

সায়মন বলেন, ‘আমরা বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতির সঙ্গে রাতের খাবার খেয়েছি। আমরা যখন ওখান থেকে বের হই, তখন রাত নয়টা বাজে।’

দাদার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ আছে সায়মনের, কিন্তু সবাইকে তা বলা হয়নি। আসলে সায়মন নিজেই জানাতে চাননি। শনিবার যেহেতু চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির সবাইকে নিয়ে বঙ্গভবনে গিয়েছিলেন, তাই বিষয়টি সবাই জেনে গেছে। জানালেন, গতকাল ​রোববারও দাদার কাছে গিয়েছিলেন তিনি।

আজ সোমবার সায়মনের সঙ্গে যখন কথা হয়, তখন তিনি রাজধানীর উত্তরায় শুটিং করছেন। ছবির নাম ‘বাহাদুরি’। মারামারির দৃশ্য। সায়মন বললেন, ‘রোজা রেখেছি। আর রোজা রেখে এই গরমে মারামারির দৃশ্যের শুটিং করছি। বুঝতেই পারছেন, কতটা কষ্ট হচ্ছে!’

Check Also

ভালো নেই পূর্ণিমা

ঢাকাই সিনেমার দর্শকপ্রিয় অভিনেত্রী পূর্ণিমা ভালো নেই। হঠাৎ করে কয়েকদিন ধরে ঠাণ্ডাজ্বর ও গলা ব্যথায় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.