Home / মিডিয়া নিউজ / রকিবুল আলম রকিবকে ধন্যবাদ, তিনি সত্য কথাগুলো তুলে ধরেছেন : পপি

রকিবুল আলম রকিবকে ধন্যবাদ, তিনি সত্য কথাগুলো তুলে ধরেছেন : পপি

বাংলাদেশের ৯০ এর দশকে সিনেমা জগতে পদার্পন তার। সিনেমা জগতে আসার পর থেকেই তিনি

সফল। পিছনে ফিরে তাকাতে হয়নি তাকে। একের পর এক করে গেছেন ব্যবসা সফল সব সিনেমা।

তবে বর্তমান সময়ে তাকে আর তেমন সিনেমায় দেখা যায় না খুব একটা। অনেকটা আড়ালেই থাকেন

এই জনপ্রিয় অভিনেত্রী। সম্প্রতি তিনি সংবাদ মাধ্যমের শিরোনামে পরিনিত হয়েছেন তিনি।লেডি অ্যাকশন

ঘরনার ছবি ’ইয়েস ম্যাডাম’। শুরুতে এতে অভিনয়ের জন্য চুক্তিবদ্ধ হয়েছিলেন চিত্রনায়িকা পপি। কিন্তু পরবর্তীতে ’ইয়েস ম্যাডাম’র জন্য চুক্তিবদ্ধ হন চিত্রনায়িকা কেয়া। অনেক গণমাধ্যম সংবাদটি মুখোরোচ করতে ’বাদ পড়লেন পপি’ বা ’তার জায়গায় নেওয়া হচ্ছে’ এমন শিরোনামে সংবাদ প্রকাশ করেছেন। যা নজরে এসেছে পপির। বিষয়টি নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কারপ্রাপ্ত এই অভিনেত্রী।
’ইয়েস ম্যাডাম’ ছবিতে পপির অভিনয় প্রসঙ্গে শুরুতে জানতে চাওয়া হয় এই ছবির পরিচালক রকিবুল আলম রকিবের কাছে।

তিনি বলেন, ’আমরা প্রথম দিকে এই ছবির জন্য চিত্রনায়িকা পপিকে নির্বাচন করেছিলাম। তার সঙ্গে আমাদের চুক্তিও হয়। কিন্তু পপি ছবির গল্প পরিবর্তন করার জন্য আমাদের বলেছিলেন। তবে আমরা সেটা করিনি। তাই তিনি এই ছবি থেকে সরে দাঁড়িয়েছেন। তিনি অভিনয় করবেন না বলে আমাদের জানিয়ে দেন। এরপর আমরা নতুন করে ছবির নায়িকা চূড়ান্ত করি।’

বিষয়টি নিয়ে চিত্রনায়িকা পপি বলেন, ’গল্প ও চরিত্রটি আমার মনের মতো হয়নি। এছাড়াও এতে একাধিক নায়িকা থাকার কারণে ছবিতে অভিনয় করা হয়নি। কিছু সংবাদ মাধ্যমে দেখলাম, বাদ পড়েছেন পপি বা পপির জায়গায় অমুক লিখে সংবাদ প্রকাশ করা হয়েছে। এটা কেন? আমার জায়গায় অমুক কেন হবে বা বাদ কেন হবে? কারো স্থান কি কেউ নিতে পারে। বাদ দেওয়া কথাটি একজন শিল্পীর জন্য খুবই দুঃখজনক ও অসম্মানজনক। বিশ্বের কোথাও কি এমন হয়?’

ক্ষোভ নিয়ে তিনি আরও বলেন, ’আমরা নিজেরাই তো নিজেদের সম্মান করি না। অন্যদের কেন দোষ দেব। আমার আজকের এই অবস্থান কিন্তু একদিনে তৈরি হয়নি। আজকের এই পপি হতে অনেক পরিশ্রম করতে হয়েছে। আমি চাইলে, প্রতি মাসে একটি করে ছবিতে চুক্তিবদ্ধ হতে পারি। তাহলে কি ছবির মান ধরে রাখা যাবে। আমি মনে করি, না। আমাকে আমার ক্যারিয়ার দেখতে হবে। ভালো-মন্দ বুঝে অভিনয় করতে হবে। আমি তাই করছি, আর করেই যাবো। প্রয়োজনে বছরে একটি কাজ করবো আর না হয় বসে থাকবো।’

সবশেষে তিনি নির্মাতাকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, ’নির্মাতা রকিবুল আলম রকিবকে ধন্যবাদ জানাই, তিনি সত্য কথাগুলো সংবাদ মাধ্যমে তুলে ধরেছেন।’

উল্লেখ্য, ’এই সিনেমার মাধ্যমেই তিনি বলতে গেলে নিজের ক্যারিয়ারের বিরতিটা ভাঙ্গতে চাইছিলেন। কিন্তু নিজের কিছু কারন দেখিয়ে সরে গেলেন সিনেমা থেকে। তাই পপি ভক্তদের অনেকটা সময় আরো অপেক্ষা করতে হবে তাদের প্রিয় অভিনেত্রীকে বড় পর্দায় দেখার জন্য। সিনেমার অভিনয়ের জন্য পপি পেয়েছেন ৩ বার জাতীয় চলচিত্র পুরষ্কারও।

Check Also

খোঁজ পাওয়া গেল সালমান শাহের আরেক নায়িকা সন্ধ্যার

ঢালিউডে তিনি যাত্রা করেছিলেন ‘প্রিয় তুমি’ সিনেমা দিয়ে। সেটা ১৯৯৫ সালের কথা। কলেজে পড়ার সময় …

Leave a Reply

Your email address will not be published.

Recent Comments

No comments to show.